আমিরার প্রথম জন্মবার্ষিকীঃ Amirah’s First Birthday

আমিরার প্রথম জন্মবার্ষিকী
আমিরার আজ শুভ জন্মদিন
তাই দিন্টা কত ঝলমল, কত রঙ্গিন।
খুশিতে হয়ে দিশেহারা
জন্মদিনে মিলেছি আমরা;
এসেছে এই উৎসবে আপনজন
দাদা দাদী, বড় মা, নানা নানী, ফুফা ফুফু আত্মীয় স্বজন।
চাচা চাচী আরও কত আত্মীয় স্বজন।
সবাই এসেছে আমিরাকে করতে আশীর্বাদ
তার দীর্ঘায়ু আর মঙ্গল কামনায় হাত তুলে মুনাজাত
আমিরার মন মাতান হাসি
যে দেখেছে সে হয়েছে খুশী।
সকালে উঠে আমিরা ডাকে কাক কাক;
যে শুনেছে সে হয়েছে অবাক।
দেখেছি তাকে বড় হতে সারা বছর ধরে
অসহায় শিশু থেকে বসতে ধীরে ধীরে।
বসার থেকে একটু করে ধরে দাঁড়াতে;
এখন সে পারে অনায়াসে হামাগুড়ি দিয়ে চলতে।
তার মিষ্টি স্বভাবে সকলেই তুষ্ট
দুধ আর খাবার খেতে দেয়না কষ্ট।
মা বাবার সে এক অমূল্য রত্ন;
সে তাদের এক সুখের স্বপ্ন।
তাকে দিয়ে যেন মা বাবার সাধ হয় পূর্ণ;
আমিরার কৃতিত্বে তারা যেন হয় ধন্য।
তার দাঁত নেই বলে আমরা তাকে ডাকি দাদী বুড়ী
সে বুঝেনা আমরা কেন তার সঙ্গে করি কেন এত বাড়াবাড়ি।
আদরের আমিরাকে কোলে নিতে করি আমরা কাড়াকাড়ি।।
এ সুযোগ হারাব আমরা যখন সে হাটবে তাড়াতাড়ি।
আমিরার আরও কত কীর্তি দেখে নয়ন যায় ভরে।
এ’ সব ঘটনা চিরদিন রাখব মোরা স্মৃতে পটে ধরে।
আমিরা জানেনা স্বরবর্ণ ও এবং ঔ
কুকুর দেখলে কিন্তু সে ডাকে ভৌ ভৌ।
ধারে কাছে বাড়ীরআশে পাশে বিড়াল ছানা নাই;
মিয়াও মিয়াও বলতে শিখেনি সে তাই।
খুশীতে যখন তার ভরে যায় হৃদয়
দুলে দুলে ঘন ঘন সে হাত তালি দেয়।
আমরা কেউ যখন বাসা থেকে নিই বিদায়
টা টা করে তালে তালে সে হাত নাড়ায়।
জন্ম দিনের কথা বুঝবে না সে এখন
চারিদিকের পরিবেশ এখন কেন এত আনন্দঘন
ছবিতে তাই ধরে রাখব মোরা আজকের আয়োজন।
বড় হয়ে যেন সে জানতে পারে এক বছর বয়সে সে ছিল কেমন?
সে কি হবে জীবনে?
এ প্রশ্ন জাগে সর্বদা মনে।
সে কি হবে দাদার মত প্রফেসার?
না পাপার মত ইঞ্জিনিয়ার ?
না ফুফুর মত বিজ্ঞানী, না দাদীর মত গৃহিনী?
না মামার মত ব্যবসায়ী, না চিকিৎসক, না শিল্পী?
সে হয়ত বলবে আমি হব আমার মত;
আমার জন্য চিন্তা করোনা অতশত।
জাননা আমি একবিংশ শতাব্দীর ছাত্রী;
যেখানে আছে সম্মান ও যশ আমি সে পথের হব যাত্রী।
সে বলবে হয়ত, দোয়া কর যেন আমার ঈমান হয় মজবুত ।
আমি যেন চলতে পারি ন্যায় ও সত্য পথে নিয়ত নিঁখুত।
আজ এই পবিত্র দিনে আমরা সবাই করি তোমার জন্য প্রার্থনা।
যতদিন না হয় শুভ্র তোমার সব ক’টি কেশ;
ততদিন সুন্দর হয়ে বেঁচে থাক এই আমাদের কামনা।
জীবনে যেন কোনদিন সুখের না হয় নিঃশেষ;
জীবনে যেন না পাও দুঃখ না কোন ক্লেশ।
দাদা ও দাদী
১৬ই মে ১৯৮৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>